Friday, October 31, 2014

Lucky Luke - Dick Digger's Gold Mine (Book# 48)

The "Dick Digger's Gold Mine", written and drawn by Morris, is an album containing two stories from serial publication in Le Journal de Spirou during 1947, namely "Dick Digger's Gold Mine - 24 pages" (La Mine d'or de Dick Digger) and "The Look-Alike of Lucky Luke - 22 pages, without a title" (Le Sosie de Lucky Luke. Together they were released as the first official Lucky Luke hardcover album in 1949.

Among the very earliest Lucky Luke work (produced the following year after the first story, Arizona 1880), these two stories were published before Morris began his five year stay in US. The artwork of the two stories (which shows obvious differences although created only months apart) demonstrates the changes from the earliest style to what would become the settled Lucky Luke expression. At this point the Jolly Jumper character had not yet been given the power of speech.

The end of "The Look-Alike of Lucky Luke" marks one of the very few times Lucky Luke kills the villain. The final duel of Lucky Luke et Phil Defer originally ended with the death of the latter. Although, in the censored version, the doctor then declares him simply injured but his shoulder in such a state that his career as a gunman is over. Bob Dalton (cousin of the less fierce Daltons) also met a violent end in the story Hors-la-loi, though after the original Spirou publication this was judged to be too bloody by La commission française de surveillance des publications destinées aux jeunes after new restrictions by the law of 1949, and softened for the album reissue, with the Daltons simply being hanged and buried. 

These stories also feature caricatures of people from Morris' circle, notably André Franquin, Will, and the fathers of Morris and Eddy Paape.

Morris (Maurice de Bevere) - Dec 01,1923 - July 17, 2001

In "Dick Digger's Gold Mine (24 pages)", Lucky Luke and Jolly Jumper meet an old friend, the prospector Dick Digger in extasty over a recent gold ore discovery, en route to register his gold mine claim in Nugget City. Celebrating loudly at a saloon, Digger is identified as a target of robbery by two hardened criminals, and after assaulting him alone in his room, they get away with his gold and a map leading to the gold find. The following day, Lucky Luke and Jolly Jumper take up pursuit following their trail.

In "The Look-Alike of Lucky Luke (22 pages)", Luke discovers he causes fear in the inhabitants of a town, because he is remarkably similar to a notorious villain named Mad Jim, currently in prison and scheduled for hanging. Spotted by two thugs who are Mad Jim's associates, Luke is ambushed and knocked out in a scheme to replace him with the doppelgänger in a drunken sheriff's jail cell, in order to get a share of Mad Jim's loot. Taken without doubt for the dangerous villain, Lucky Luke barely escapes the mob lynching before he is able to pursue the criminals and bring them to justice.

Book# 48
Script & Drawings: Morris 
Series: Lucky Luke - Book# 48 (Two stories, 48 pages)
Original Release: 1949
Publisher: Cinebook Ltd (2014) 

Lucky Luke #48
(42.4 MB) 

Sunday, October 19, 2014

The Strange Encounter - Blake & Mortimer

Cinebook has given us many excellent new adventures that appear nostalgic, and yet have a present time point of view. Mortimer and Blake are a terrific team of British heroes. Mortimer is a grumpy Scottish physicist, Blake is an RAF soldier-spy type. The two have appropriately dashing adventures - atomic science, time travel and the occult are all mixed up with the everyday business of running the Empire. 
This is a great science-fiction story, and the return of past villainsWe get the return of Colonel Orlik and a major villain from an earlier story. Once again, we get hints of what happened in the first B&M story, "Secret of the Swordfish" which has been published in English much later to this story.

Other Fact:
While Cinebooks has published this as their 5th volume in the B&M series, but this is really the 15th volume, and its one of several, done by the team of James Van Hamme & Ted Benoit - but not really done by EP Jacobs, who created the series. 

Synopsis: The two gentlemen-spies travel to America and take on a 177-year-old evil. Blake and Mortimer head to the United States to investigate the mysterious circumstances surrounding the discovery of a 177-year-old body, which appears to have died very recently. The body is that of a Scottish major, Mortimer's ancestor, who was leading a British military expedition to the US in 1777 when he was swallowed up by a strange, multicolored light-beam shining down from the sky. A secret message accompanies the corpse, that is identified as Lachlan, this is equally mysterious. What does "Yellow King 8061, Danger, Light, Plutonium, H Poplar Trees, Temple 1954' mean? Blake and Mortimer fight men in black armed with green-laser guns and soldiers emerging from the past in order to save the Earth from complete obliteration.

~ ~ ~ * ~ ~ ~

This is not merely a juvenile adventure. European series have appealed to all age levels and make no apologies for mature themes. Read that fantastic Sci-Fi comics here.

Series: Blake & Mortimer - Book# 05 (66 pages)
Publisher: Cinebook Ltd (March, 2009)

The Strange Encounter 
(30.3 MB) 

Friday, October 17, 2014

The Inimitable Birbal - ACK

বীরবল, গোপাল ভাঁড়, আর মোল্লা নাসিরুদ্দিন - এই তিনজনই ছিলেন মোটামুটি সমমাত্রার বুদ্ধিমান, চতুর ও হাস্যরসে ভরপুর ব্যক্তিত্ব। কিন্তু এদের মধ্যে বীরবলের পদমর্যাদা ছিলো বেশ উঁচুমাত্রায় বাঁধা, কারণ তিনি ছিলেন জগৎবিখ্যাত সম্রাট আকবরের রাজসভার নবরত্নের অন্যতম প্রধান রত্ন, ও সম্রাটের সবচেয়ে প্রিয় মন্ত্রী। ছোটবেলায় স্কুলে পড়ার সময়ে ইতিহাসের পাঠ্যবই, 'স্বদেশকথা'-তে  বীরবলের কথা জেনেছিলাম, যদিও তার অনেক আগে থেকেই অমর চিত্রকথা-র সৌজন্যে বীরবলের অনেক গল্পই পড়া হয়ে গেছে। 

ACK - Birbal Stories (3 out of 7)
সম্রাটের আকবরের সাথে বীরবলের প্রথম পরিচয় যে কি করে ঘটেছিলো, তা নিয়ে খুব বিশ্বাসযোগ্য কোনো তথ্যের সন্ধান পাওয়া যায় না। যে'কয়টি কাহিনী শোনা যায় তার মধ্যে সব থেকে পপুলার কাহিনীটি হলো এই রকম: সম্রাট আকবর শিকারে যেতে খুবই ভালবাসতেন। একবার শিকারযাত্রায় বার হয়ে সম্রাট ও তাঁর সভাসদেরা কোনোভাবে ফেরার রাস্তা হারিয়ে ফেলেন। কয়েক ঘন্টা ধরে নানান পথে ঘুরে ঘুরেও তাঁরা রাজধানীতে ফেরার রাস্তা খুঁজে বার করতে পারলেন না। ক্ষুধা-তৃষ্ণায় কাতর হয়ে, অবসন্ন শরীরে হাঁটতে হাঁটতে অবশেষে তাঁরা এক তিন-মাথা রাস্তার সংযোগস্থলে এসে হাজির হলেন। কিন্তু কোন রাস্তা ধরে এগুলে যে রাজধানীতে, অর্থাৎ আগ্রায় পৌঁছানো যাবে তা কেউই স্থির করতে পারলেন না। এই সময় এক যুবককে দেখা গেলো সেই তিন রাস্তার এক রাস্তা ধরে তাঁদের দিকে আসতে। সম্রাট তাকে জিজ্ঞাসা করলেন যে সেই রাস্তা তিনটির মধ্যে কোন রাস্তাটি আগ্রায় গেছে। উত্তরে সেই যুবক একটু হেসে বললেন, "কোনোটাই নয়"। সঙ্গে থাকা সভাসদেরা সবাই যুবকের সেই উত্তরে অবাক এবং শঙ্কিত হয়ে উঠলেন, কারণ সম্রাটের মাথায় একবার রাগ চড়ে গেলে, মৃত্যুদন্ড অবশ্যম্ভাবী। সম্রাট কোনরকমে তাঁর মেজাজ ঠান্ডা রেখে যুবকের সেই উত্তরের কারণটা কি তা জানতে চাইলেন। জবাবে সেই যুবক বললেন যে, কোনো রাস্তাই কোথাও যায় না, যায় শুধু পথিকেরা - তাই নয় কি?  - এমন সহজ, সরল ব্যাখ্যা শুনে সম্রাট খুবই খুশি হলেন এবং তখন তিনি তাঁর আসল পরিচয় দিলেন। এরপর তিনি তাঁর আঙুল থেকে একটি আংটি খুলে সেই যুবকের হাতে দিয়ে বললেন যে তাঁর রাজসভায় এরকমই নির্ভয়ী, রসিক ও বুদ্ধিমান লোকের খুব প্রয়োজন, তাই সে যেন অবশ্যই এই আংটি সঙ্গে নিয়ে তাঁর রাজদরবারে সময় করে দেখা করে। সম্রাট তাকে আবার জিজ্ঞাসা করলেন, যে কোন রাস্তা দিয়ে গেলে আগ্রায় পৌঁছানো যাবে। যুবক নতজানু হয়ে সম্রাটকে অভিবাদন করে, আগ্রায় পৌঁছানোর সঠিক রাস্তাটির হদিশ দিয়ে দিলেন। 

সেই যুবকই হলেন "মহেশ দাস", যিনি সম্রাট আকবরের রাজসভায় মন্ত্রিত্ব পদে যোগদান করার সৌভাগ্য লাভ করেন, এবং পরবর্তীকালে সম্রাটের দেওয়া "বীরবল" উপাধিতে ভূষিত হয়ে জগৎবিখ্যাত হয়ে যান।       

~ ~ ~ * ~ ~ ~

এই পোস্টে অমর চিত্রকথা থেকে প্রকাশিত বীরবলের অনেকগুলি গল্পের মধ্যে আমার ফেভারিট একটি বইয়ের সবকটি গল্প আপলোড করা হলো, featuring 'Birbal - The Inimitable Birbal'....

Sunday, October 12, 2014

Lucky Luke - The Singing Wire (Book# 35)

Another Sunday evening is approaching - time to settle down on the side of your sofa set and then have a wonderfully relaxed, old fashioned and simple fun time in the wild, wild west. You must know what I mean, right? Yessss !! It's time for a new Lucky Luke Adventure !!

Author: Morris
Born and raised in Belgium, Morris moved to the United States in 1946 for six years, where, he worked for MAD magazine and met Rene Goscinny, with whom he collaborated from 1955 until Goscinny's death in 1977. 

 Luke proposes a cigarette with 'Morris'
Goscinny also created the "Iznogoud" series with illustrator Tabary, published in English by Cinebook, and the hugely successful "Asterix" series with illustrator Uderzo.

~ ~ ~ ~ ~ ~ ~ ~

This is a tale from 1977, towards the end of Goscinny and Morris’ collaboration on the tales of the "Man who shoots faster than his own shadow". This is one of the best comedy stories of Lucky Luke where he got involved with the joining of the telegraph (the singing wires of the title) and then it all goes, from one set-piece to another, gag to gag to gag. 

Synopsis: 1861. Abraham Lincoln orders that the First Transcontinental Telegraph line, currently interrupted between Nevada and Nebraska, be completed. Two teams, one heading east from Carson City and the other west from Omaha, will meet up in Salt Lake City. Lucky Luke joins the eastbound team. But when a $100,000 reward is offered to the first team to arrive, there’s suddenly more to fear than the natural obstacles of the journey: A saboteur seems to be at work!

Series: Lucky Luke - Book# 35 (48 pages)
Publisher: Cinebook Ltd (June, 2012)

Lucky Luke #35
(38 MB) 

Monday, October 6, 2014

মুশকিল আসান উড়ে মালি, ধর্মতলায় কর্মখালি

"হলদে সবুজ ওরাং ওটাং, ইট পাটকেল চিটপটাং ,
গন্ধ গোকুল হিজিবিজি, নো অ্যাডমিশান ভেরি বিজি
মুশকিল আসান উড়ে মালি, ধর্মতলায় কর্মখালি...

"আনন্দলোকে মঙ্গলালোকে বিরাজ সত্যসুন্দর..." - যে আনন্দ উপভোগ করেছি ভোরের শিশিরবিন্দু ঠোঁঠে মেখে, বিয়েবাড়ির খাবার সেরে রাতদুপুরে জ্যোৎস্নাধোয়া উন্মুক্ত প্রান্তরের মধ্যে দিয়ে বাবার কাঁধে চেপে বাড়ি ফিরতে, মেলায় গিয়ে শোনা বাউলের দোতারার টান আর সহজিয়া সুরের বাঁধনে বিভোর হয়ে যেতে, ভরা বর্ষার চোখরাঙানিকে উপেক্ষা করে কলাগাছের ভেলায় চড়ে মাঝপুকুরে তাল, সাঁপলা তুলে আনতে - আরও যেসব  অজস্র রঙিন স্বপ্নে বিভোর হয়ে কেটেছিলো আমার...আমাদের ছোটবেলা, তাকে কি কখনো লেখার মধ্যে বা ফটোর মধ্যে ধরে রাখা যায়?

ছেলেবেলা নিয়ে লেখা সহজ কথা নয় - স্মৃতি হাঁতড়ে হাঁতড়ে শৈশবকে ফিরিয়ে আনতে হয়। কিন্তু একবার কোনো একটা স্মৃতি মনে পড়ে গেলে, চেন রি-অ্যাকশনের মতোই একের পর এক স্মৃতিরা এসে ভীড় করতে থাকে। কিছু কিছু এমন জিনিষ আছে, যা সলতেতে আগুন দেবার মতো করে সেই "স্মৃতিগেট"টাকে হুশশ করে খুলে দেয়। এমনই সেই বস্তু হলো সুকুমার রায়ের লেখা ছোটদের গল্পবইটি...   

প্রকাশক: দেজ পাবলিশার্স (প্রথম প্রকাশ: জানুয়ারী 2000)
দেশের বাড়িতে ছিলো এই বইটারই আদি সংস্করণ, লাল রংয়ের, বিড়ালের ছবি আঁকা, লম্বা-চওড়ায় অন্যান্য বইয়ের থেকে বেশ বড়ো, বেখাপ্পা সাইজের "সমগ্র শিশু সাহিত্য" - ছোটবেলায় যার থেকে গল্পগুলো পড়ে পড়ে প্রায় মুখস্থর পর্যায়ে এনে ফেলেছিলাম। সদ্য সমাপ্ত দুর্গাপুজায় ঠাকুর দেখতে গিয়ে, পুজা-ক্যাম্পাসের স্টলগুলিতে উঁকি মেরে মেরে দেখছিলাম। বেশিরভাগই আমিষ খাবারের স্টল, নয়তো শাড়ি-সালোয়ার-জুয়েলারির - আর ভীড়-ভাট্টাও সেগুলোতে মন্দ নয়। টপ-টু-বটম প্রসাধনে ভয়ানক-সজ্জিত মানবীদের দল সেগুলোতে ফিরফির করে উড়ে উড়ে বেড়াচ্ছে। এই বাজারে সবচেয়ে করুণ মুখ করে চেয়ে আছে বইয়ের স্টলটি, হাতে-গোণা একটিই। দু'একজন ঘুরছিলো বটে সেখানে, কিন্তু তাদেরকে দেখে ঠিক ক্রেতা বলে মনে হলো না। "প্রচেত গুপ্ত"-র লেখা গল্প সংকলনটির দাম চাইলো তেত্রিশ ডলার, যেটা কিনা যেকোন বাংলাদেশীদের ব্লগ থেকে অহরহ ফ্রীতে ডাউনলোড করা যাচ্ছে !! একটু ঝাঁকুনি খেয়ে, নানান ভাবনা-চিন্তা করে শেষমেষ কিনে ফেললাম এই "সুকুমার সমগ্র"টি। বেটার-হাফ কে দিয়ে দরাদরি করিয়ে দু-ডলার কমিয়ে, মাত্র পনেরো (!$!) ডলার দিয়ে, বেজায় লাভ করেছি এমন হাসি-হাসি মুখ করে কিনে, সঙ্গে নিয়ে ফিরলাম কৈশোরের অমূল্যধন সেই বইটিকে। পুজাপ্রনামের আনুষ্ঠিকতা সেরে ঠাকুরের স্টেজের সামনে থাকা চেয়ারগুলির একটিকে দখল করে, কেৎরে বসে শুরু করে দিলাম পড়া, "পাগলা দাশুর" গল্পগুলো। মুহুর্তক্ষণেকের মধ্যেই মিলিয়ে গেল আশেপাশে জনতার উচ্ছাসিত কলরব, স্টিরিও বক্সের নকল-ঢাকের দম-দম্মাদম তান্ডব রব - পড়ে রইলাম শুধু আমি, ও আমার ছোটবেলা !! ফিরে গেলাম সেই হারানো ছোটবেলায়... যেখানে খাকি রঙের মোটা কাপড়ের স্কুলব্যাগ পিঠে বয়ে নিয়ে, রাস্তার ধার ধরে টিকটিক করে হেঁটে চলেছি আমি, বন্ধুদের সাথে সাথে...    

অফুরন্ত মজায় মজে ছিলাম, আর মজেও থাকব আমৃত্যুকাল অবধি। ব্যাকরণ না-মানার লেখক সুকুমার, কথায় কথায় মজার স্রষ্টা 'মজারু' সুকুমার কোনদিনও পুরনো হবেন না তাঁর সেই অক্ষয় অব্যয় অনবদ্য মন্ত্রটির মতো:
                     "মুশকিল আসান উড়ে মালিধর্মতলায় কর্মখালি
                           চিনেবাদাম সর্দিকাশি, ব্লটিংপেপার বাঘের মাসি 

এমন অর্থহীন সার্থক রচনা একমাত্র সুকুমারের পক্ষেই সম্ভব ! পড়ুন এখানে সেই সুকুমার রায়ের লেখা সেই অফুরন্ত মজার কিছু গল্প। 

সুকুমার রায়ের গল্প 
(19 MB) 

Thursday, October 2, 2014

"পশ্চিমী পুজা ম্যাগাজিন ('অঞ্জলি') ও আমি..."

"এই দিন দিন নয়, আরও দিন আছে ,
এই দিনেরে নিয়ে যাবো, সেই দিনের কাছে...

ছোটবেলায় দেখতাম বাবা আমাদের বাড়ির উঠানটার মাঝখানটায় মাদুরে বসে, একরাশ তারা-ভর্তি আকাশের নীচে হ্যারিকেনের আলোয় হারমোনিয়ামের বেলো টেনে টেনে, তাঁর খোলা, উদাত্ত গলায় গান গেয়ে চলেছেন: 'আমি দুরন্ত বৈশাখী ঝড়',  'মধুর আমার মায়ের হাসি', কিম্বা 'কারার ওই লৌহকপাট...', আরো কতো কি গান। স্রেফ হারমোনিয়াম আর সস্তার তবলার সঙ্গতে গাওয়া সেইসব গান শুনতে পাড়ার কতো লোক সপ্তাহান্তে সন্ধ্যা হলেই বাড়িতে এসে ভীড় করে বসে থাকতো। পরম করুণাময় ঈশ্বর আমার গলায় তাঁর মতো করে সুর ভ'রে দেন নি, কিন্তু সুরের মাধুর্য্য বোঝার ক্ষমতাটা সামান্য হলেও ঢুকিয়ে দিয়েছিলেন এই মোটা মাথাটায়। সেই সুরের হাত ধরে ধরেই একসময় চলে এসেছিলো সাহিত্যের প্রতি ভালোবাসা - সোজা বাংলায় যাকে বলে হয়ে উঠেছিলাম 'গল্প-উপন্যাসের পোকা'। পড়াশুনার শেষে কর্মব্যস্ত জীবনের ফাঁকে মাঝে মাঝে চেষ্টা করেছি নিজের মতো করে কিছু লিখতে - কিন্তু প্রিয় লেখকদের লেখার স্টাইল, কেমন করে না-জানি, আমার নিজের লেখার মধ্যে অজান্তেই ছড়িয়ে পড়তো। বাধ্য হয়ে একসময় লেখালেখি সব বন্ধ করে দিয়েছিলাম। প্রবাসে আসার বেশ কিছুকাল কেটে যাবার পর এখানকার গ্যাজেটে-ভরা যান্ত্রিক জীবনের প্রতি কিছুটা অনাসক্তি জাগার পরই আবার হাতে তুলে নিই 'কলম' -  তবে, সত্যি করে বলতে 'কলম' নয়, স্রেফ ল্যাপটপের কি-বোর্ডে টাইপ করে গুগল ব্লগে কিছু কিছু করে 'আর্টিকেল' টাইপের লেখা জমাতে শুরু করি। তেমন কোনো নির্দিষ্ট বিষয় ছিলো না, যখন যেরকম মুড থাকতো, তার উপর ভিত্তি করে কিছু এদিক-সেদিক লেখা। তবে এইবারে আমি সতর্ক ছিলাম যাতে আমার প্রিয় সব লেখকদের, অর্থাৎ শীর্ষেন্দু-সঞ্জীব-তারাপদ-দুলেন্দ্র ভৌমিক আর হুমায়ুন আহমেদ-এর লেখার প্রভাব যেন আমার লেখার মধ্যে খুব বেশি করে ঢুকে না-পড়ে। ছোট ছোট আর্টিকেল লেখার সুবিধা হলো এটাকে নিজের খুশিমতো যেখানে ইচ্ছা সেখানে থামিয়ে দেওয়া যায়, আর প্রায় যে কোন বিষয় নিয়েই লেখা শুরু করা যায়। এইভাবে বেশ কিছু লেখা ধীরে ধীরে জমে উঠেছিলো আমার "ডাউন মেমরি লেন" ব্লগে। মাঝে মাঝে দেখতাম আমার চেনাজানা গুটিকতক বন্ধু-বান্ধব ছাড়াও, বেশ কিছু ই-পাঠকও সেইসব লেখা পড়ছে - কেউ কেউ তাদের মতামতও ইমেল করে জানাচ্ছে। 
বে-এরিয়ার পশ্চিমী পুজা সংগঠনের 'অঞ্জলি' পূজা ম্যাগাজিন (2009, 2013, 2014)
তাদের সেই পড়ার আগ্রহে ভরসা পেয়ে, অধিক-পঠিত আমার কয়েকটি আর্টিকেল আমি পাঠিয়ে দিই আমাদের এখানকার লোকাল দূর্গাপুজা সংগঠন ('পশ্চিমী')-র কাছে, তাদের বাৎসরিক পুজা-ম্যাগাজিনে ('অঞ্জলি') প্রকাশ করার জন্যে। মনোনীত যে হবেই তেমন কোনো প্রত্যাশাও ছিলো না, আর না-হলেও তেমন কিছু মনে করতাম না, কারণ এই লেখাগুলির প্রতি সত্যি বলতে কি তেমন করে নজর দেবার সময় পেয়ে উঠিনি। কাজের ফাঁকে ফাঁকে পাওয়া দু-চার ঘন্টার মধ্যে যে-টুকু লিখে ওঠা যায় আর কি ! কিন্তু, প্রতি বছর নিয়ম করে পাঠাতে না-পারলেও, যে'কটি বার পাঠিয়েছিলাম সৌভাগ্যক্রমে তাদের প্রতিটি লেখাই মনোনীত হয়ে যথাসময়ে তাদের প্রিন্টেড ম্যাগাজিনে স্থান করে নিয়েছিলো। 

এই পোস্টে আমি সেইসব কিছু লেখা আপলোড করলাম। কিছুটা নিজের ব্যক্তিগত জীবনের কথা, কিছুটা স্যাট্যায়ার টাইপের লেখা, কিছুটা নিছক হাস্যরসে ভরা এই ছোট ছোট রচনাগুলি পড়তে খুব একটা খারাপ লাগবে না - এইটুকুই যা আশা !!   

১. ছেঁড়া ঘুড়ি, রঙিন বল (2014ডাউনলোড লিংক:  ক্লিক করুন এখানে  (6 MB)
২. পুজা Sponsorship স্ট্র্যাটেজি (2013) ডাউনলোড লিংক:  ক্লিক করুন এখানে (14 MB)
৩. কিছু হাসি, কিছু কান্না (2009ডাউনলোড লিংক:  ক্লিক করুন এখানে  (6 MB)